loading...

ত্বকের জন্য মারাক্তক ক্ষতিকর ৭টি খাদ্যাভাস বর্জন করুন!

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন

Loading...
loading...

Friendsblog.net_Fairness-to-the-skin-bright-fresh-sweet-potatoes-Use-Nutযতই রূপচর্চা করুন না কেন, উপযুক্ত খাবার না খেলে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখা সম্ভব হবে না। কারণ ত্বকের যত্নে শুধু রূপচর্চাই পর্যাপ্ত নয়। এ জন্য খাবারের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ লেখায় থাকছে সাতটি খাবার, যা বেশি গ্রহণ করলে ত্বকের ক্ষতি হয়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।
১. বাড়তি কার্বহাইড্রেট
কার্বহাইড্রেট পরিমিত খাওয়া ক্ষতিকর নয় কিন্তু তা বেশি মাত্রায় গ্রহণ ত্বকের ক্ষতি করে। কার্বহাইড্রেট ও চিনিসমৃদ্ধ খাবার যেমন ব্রেড, ক্যান্ডি, পাস্তা, সোডা ও কৃত্রিম বা মিষ্টি জুস ও পানীয় ত্বকের ক্ষতি করে। এগুলো রক্তের চিনির মাত্রা বাড়িয়ে দেয় এবং দেহের হরমোনের ওপর প্রভাব বিস্তার করে ফলে ত্বকের জন্য নানান ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি হয়।
২. লবণ
ফোলা চোখ কিংবা চোখের নিচের কালো সার্কল নিয়ে চিন্তিত? অনেকেরই এ ধরনের সমস্যা হয় বাড়তি লবণ গ্রহণের কারণে। খাবারের সঙ্গে বাড়তি লবণ দেহের অন্যান্য ক্ষতির সঙ্গে ত্বকেরও ক্ষতি করে। লবণের সোডিয়াম দেহের কোষগুলোকে ফুলিয়ে দেয়। আর এতেই শুরু হয় বিপত্তি। তাই ত্বকের যত্নের জন্য হলেও লবণ গ্রহণ কমাতে হবে।
৩. অ্যালকোহল
অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় কিংবা খাবার ত্বকের ক্ষতি করে। বিশেষ করে বাড়তি অ্যালকোহল পানে দেহে পানিশূন্যতা তৈরি হয়। এ ছাড়া অ্যালকোহল দেহের ভিটামিন এ কমিয়ে দেয়। এ জন্য ত্বকের যথেষ্ট ক্ষতি হয়।
৪. স্বাস্থ্যকর ফ্যাট বাদ দেওয়া
অনেকেই ডায়েট কন্ট্রোলের চেষ্টায় খাবার নিয়ন্ত্রণ করেন। এতে বাদ পড়ে স্বাস্থ্যকর ফ্যাটও। যদিও খাবার থেকে স্বাস্থ্যকর ফ্যাট বাদ দেওয়া উচিত নয়। এতে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে। তাই ত্বকের যত্নে ভেষজ ফ্যাট, মাছের ফ্যাট কিংবা অলিভ অয়েলের মতো তেল খাবারে গ্রহণ করা যেতে পারে।
৫. দুগ্ধজাত সামগ্রী
দুগ্ধজাত সামগ্রী অত্যন্ত পুষ্টিকর। কিন্তু তা মাত্রাতিরিক্ত গ্রহণ দেহের ত্বকের জন্য ক্ষতি ডেকে আনে। তাই এ ধরনের সামগ্রী বেশি বেশি গ্রহণ করা যাবে না। এ ছাড়া অনেকেরই দুধ পানে ত্বকে ‘পোর-ক্লগিং’ বা ছোট ছোট গর্ত হয়। এমনটা হলে দুধ ও দুগ্ধজাত সামগ্রী গ্রহণ কমাতে হবে।
৬. কফি
অনেকেরই বেশি বেশি কফি পানের কারণে ত্বকের ক্ষতি হয়। কফির প্রভাবে দেহে কর্টিসল বেড়ে যায়, যা স্ট্রেসের কারণ হয়। এতে ত্বকেরও ক্ষতি হয়। তবে কফি পান বন্ধ করা অনেকটা অসম্ভব বিষয়। তাই কফি পান সীমিত করতে হবে এবং প্রাকৃতিক ডিক্যাফিনেটেড চা পান করতে হবে।
৭. চিনি
উচ্চমাত্রায় চিনি গ্রহণ দেহের নানা ক্ষতি করে যার অন্যতম হলো ত্বকের ক্ষতি। ত্বক বুড়িয়ে যাওয়ার পেছনে চিনি অনেকাংশে দায়ী। আর তাই চিনি দেহে সামগ্রীকভাবে বয়সের ছাপ তৈরি করে। তাই ত্বক সতেজ রাখতে হলে খাবারে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন

Loading...
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*