loading...

মুখের ত্বকের রোমকূপগুলো ছোট করার উপায়

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন

Loading...

অনেকের ত্বকেরই একটা সমস্যা হলো বড় বড় রোমকূপ। সাধারণত নাকের পাশে দেখা যাওয়া এসব রোমকূপ মুখের সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয়। এদের কারণে ত্বক দেখায় অমসৃণ। মেকআপের মাধ্যমে অনেকে রোমকূপ ঢাকার চেষ্টা করেন। কিন্তু সঠিক পদ্ধতি না জানার কারণে আরও বেশি চোখে পড়ে এগুলো। জেনে নিন বড় রোমকূপের সমস্যা দূর করার সহজতম তিনটি উপায়।
মূলত জেনেটিক কারণে রোমকূপ ছোট-বড় হয়। আবার ত্বকের ধরণের কারণেও পোরের আকৃতি একেক রকম হয়। শুষ্ক ত্বকের মানুষের পোর একেবারে নেই মনে হয়। আবার যাদের ত্বকের রংটা একটু শ্যামলা-ঘেঁষা তাদের রোমকূপ বড় লাগে।
রোমকূপ বড় দেখানোর কারণটা হলো তেল। মুখ যতো তেলতেলে হয়ে থাকে, রোমকূপ তত বড় দেখা যায়। এই একই কারণে পিরিয়ডের পর পরই মেয়েদের রোমকূপ বেশি করে বোঝা যায়, কারণ এ সময়ে শরীরের প্রোজেস্টেরন হরমোন বেশি থাকে এবং মুখের সিবাম গ্রন্থিগুলো বেশি করে তেল উৎপাদন করে। তাই মুখের তেলতেলে ভাব কমাতে পারা গেলে এসব রোমকূপ বা পোর দেখতে ছোট মনে হবে।

loading...

তৈলাক্ত বা স্বাভাবিক ত্বকের মানুষেরা নিজেদের ত্বকের পোর ছোট করতে দেখে নিতে পারেন এই তিনটি টিপস।

১) ব্যবহার করুন ডিপ-ক্লিনিং ক্লিনজার
তেল পরিষ্কার করার জন্য ডিপ-ক্লিনিং ফেসিয়াল ক্লিনজার এবং ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো পোর থেকে তেল এবং কালচে ময়লা দূর করে। পোরের মাঝে আটকে থাকা ব্যাকটেরিয়া অক্সিজেনের সংস্পর্শে এলে কালো হয়ে যায়, যাতে পোরগুলো আরও ফুটে থাকে ত্বকে। অনেকে ক্লিনজিং ব্রাশ ব্যবহার করেন, আপনিও করতে পারেন। তবে এগুলো দিয়ে বেশি চাপ দিয়ে ত্বক পরিষ্কারের চেষ্টা করবেন না। ত্বকের ওপর আলতো করে ধরবেন। রোমকূপ ছোট দেখাতে এই ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন দৈনিক।
২) মেকআপের আগে ব্যবহার করুন ম্যাটিফাইং প্রাইমার বা পাউডার
মেকআপ করার আগেই এই কাজটি করলে আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেবে। আর মেকআপের পণ্য কেনার সময়ে দেখে নিন সেগুলো “noncomedogenic” কিনা। এর অর্থ হলো সেই পণ্যটি পোর বন্ধ করবে না। প্রতিদিনের মেকআপ করার সময়েই ম্যাটিফাইং পণ্য ব্যবহারের অভ্যাস রপ্ত করে ফেলুন।
৩) চারকোল অথবা ক্লে ফেসমাস্ক
ফেসপ্যাক বা ফেসমাস্ক অনেকেই ব্যবহার করেন ছুটির দিনগুলোতে। এক্ষেত্রে চারকোল বা মুলতানি মাটি বা অন্য কোন ক্লে আছে এমন ফেসমাস্ক ব্যবহার করুন। এই মাস্ক ব্যবহারে আপনার ত্বক থেকে চলে যাবে অতিরিক্ত তেল।
৪) স্টিম
পার্লারে গেলে সব সময়েই দেখা যায় একটা স্টিম মেশিন। এটার মূল কাজই হলো মুখে বাষ্পের ঝাপটা দিয়ে পোরগুলো খুলে ফেলা। এরপর খুলে থাকা পোরের ভেতর থেকে ময়লা বের করে ফেলা হয়। তারপর পোর বন্ধ হয়ে গেলে অনেক ছোট দেখায় এগুলোকে। বাড়িতেও আপনি নিতে পারেন এমন স্টিম। এর জন্য গরম পানি, টাটকা গোলাপের পাপড়ি, তুলসি এবং পুদিনা পাতা নিতে পারেন একটা বড় বোলে। বোলের ওপরে একটা তোয়ালে দিয়ে ঢেকে দিন। এর ৫ মিনিট পর তোয়ালে সরিয়ে নিজের মুখ রাখুন বোলের ওপরে ধোঁয়ায়। তোয়ালেটা দিয়ে নিজের মাথা ও বোল একসাথে ঢেকে দিন যাতে পুরো স্টিম আপনার মুখে লাগে। ১০-১৫ মিনিট এভাবে স্টিম নেবার পর মুখ সরিয়ে নিন। ঈষদুষ্ণ পানিতে মুখ ধুয়ে আলতো করে মুছে নিন।
এছাড়াও রইলো রোমকূপ ছোট দেখানো আরও কিছু টিপস-
– মুখ পরিষ্কার রাখুন। কখনো মেকআপ না তুলে ঘুমাতে যাবেন না।
– পোর বড় হবার পাশাপাশি ব্রণ হবার প্রবণতা থাকলে স্যালিসাইলিক এসিড আছে এমন কোন এক্সফলিয়েটিং প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন।
– সূর্যরশ্মি ত্বকের যে ক্ষতি করে তার ফলেও পোর বড় দেখাতে পারে। সবসময় ব্যবহার করুন সানস্ক্রিন।

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন

Loading...
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*